সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

করোনাকালে শিশুদের ৪২ লিটার বুকের দুধ দান করলেন এক নারী



কথায় বলে- মায়ের চেয়ে বেশি আপন পৃথিবীতে আর কেউ হতে পারে না। আর একজন মায়ের কষ্ট, আরেকজন মা সবেচেয়ে ভালো বুঝতে পারেন। বুঝেছেন ‘সান্ড কি আঁখ’ খ্যাত বলিউড প্রযোজক নিধি পারমার হিরনন্দানিও। স্নেহের মূল্য বুঝেই করোনাকালে সদ্যোজাতদের ত্রাতার ভূমিকায় অবতীর্ণ হলেন তিনি। অন্যের শিশুদের ক্ষুধা মেটাতে দান করলেন ৪২ লিটার বুকের দুধ।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসেই শিশুপুত্রের জন্ম দেন নিধি। ‘সান্ড কি আঁখ’ ছবির পরিচালক তুষার হিরনন্দানির স্ত্রী তিনি। এক সাক্ষাৎকারে নিধি জানান, সন্তানের জন্মের পর থেকে তার স্তনদুগ্ধ প্রচুর পরিমাণে নিঃসৃত হত। সন্তানের খিদে মেটার পরও অনেকটা দুধ বাড়তি থেকে যেত। প্রথম প্রথম তিনি তা ফ্রিজে সংরক্ষিত করে রাখতেন। কিন্তু সেই সংরক্ষণের পরিমাণ ক্রমেই বাড়তে থাকে। আর নিধি তা নষ্ট করতে চাইছিলেন না। অনেকের কাছেই এই বিষয়ে পরামর্শ চেয়েছিলেন। কিন্তু কেউ ফেসপ্যাক তৈরির পরামর্শ দিয়েছিলেন, কেউ আবার ঠাট্টার ছলে ঘর মোছার কথা বলেছিলেন।

এরপরই স্তনদুগ্ধ সম্পর্কে ইন্টারনেটে পড়াশোনা করেন বলিউড প্রযোজক। তখন স্তনদুগ্ধ দান করার কথা জানতে পারেন। নিজের গাইনোকলোজিস্টের কাছে পরামর্শ চান নিধি। তিনি তাকে মুম্বাইয়ের খার এলাকার সূর্য হাসপাতালের মিল্ক ব্যাংকে স্তনদুগ্ধ দান করার কথা বলেন। কিন্তু এর মধ্যেই লকডাউন শুরু হয়ে যায়। নিধি চিন্তিত ছিলেন নিজের ছোট্ট শিশুকে রেখে তিনি বাইরে গিয়ে স্তনদুগ্ধ দান করবেন কেমন করে? সেই সমস্যারও খুব শিগগিরিই সমাধান হয়ে যায়। হাসপাতালের পক্ষ থেকে বাড়িতে এসে সংরক্ষিত দুধ নিয়ে যাওয়া হয়। এভাবেই এখন পর্যন্ত ৪২ লিটার স্তনদুগ্ধ দান করেছেন নিধি। আর তাতে বহু শিশুর ক্ষুধা মিটেছে। ভবিষ্যতেও এই কর্মযজ্ঞ চালিয়ে যেতে চান বলিউড প্রযোজক। বাকি মায়েদের এবং হবু মায়েদেরও এই কর্মসূচির অঙ্গ হওয়ার আবেদন জানিয়েছেন তিনি।

সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!