সোমবার, ১ মার্চ ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৭ ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

‘ দেশরত্ন শেখ হাসিনা সেতু’ বাস্তবায়নের দাবিতে বালাগঞ্জে মানববন্ধন



ছবি : আব্দুল্লাহ আল আমিন

বালাগঞ্জে বড়ভাঙ্গা নদীতে নির্মিতব্য ‘দেশরত্ন শেখ হাসিনা সেতু’ বাস্তবায়নের দাবিতে এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ সোমবার সকাল ১১টায় বালাগঞ্জ বাজারের ডাকবাংলো সড়কে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। সেতু বাস্তবায়ন পরিষদের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত এ মানববন্ধনে জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিক, শিক্ষক, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার শত শত মানুষ অংশগ্রহণ করেন। বিভিন্ন ব্যানার, ফেস্টুনসহ বিস্তৃত পরিসরে অনুষ্ঠিত এ মানববন্ধন কর্মসূচি চলাকালে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন সেতু বাস্তবায়ন পরিষদের আহবায়ক মো. হারুন মিয়া।

সদস্য সচিব সাংবাদিক আবুল কাশেম অফিকের পরিচালনায় কর্মসূচি চলাকালে অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন ও উপস্থিত ছিলেন বালাগঞ্জ সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মুনিম, দেওয়ান বাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাজমুল আলম, পশ্চিম গৌরীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম মধু, সাবেক ইউপি সদস্য ও সেতু বাস্তবায়ন পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক মো. আশিক মিয়া, বালাগঞ্জ বাজার বণিক সমিতির সভাপতি মো. জুনেদ মিয়া, বালাগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি রজত চন্দ্র দাস ভুলন, সাধারণ সম্পাদক মো. জিল্লুর রহমান জিলু, আল ফালাহ সমাজকল্যাণ সংস্থা বালাগঞ্জ’র সভাপতি হুসাইন আহমদ মিসবাহ, সাংবাদিক জাগির হোসেন জাকির, সাংবাদিক তারেক আহমদ, ডা. পবিত্র রঞ্জন বণিক, নবীনগর ইসলাহুল মুসলিমীন যুব সংঘের সভাপতি এড. এমরান আহমদ, ইউপি সদস্য আহমদ আলী, সমাজকর্মী আজাদ আহমদ পনির, লিয়াকত মিয়া, মাওলানা গিয়াস উদ্দিন নোমান, মাওলানা মনিরুল ইসলাম, হাফিজ জুনেদ আহমদ, সিরিয়া অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি লয়লুছ মিয়া, বালাগঞ্জ অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি জামাল মিয়া প্রমুখ।

উল্লেখ্য,  বালাগঞ্জ উপজেলা সদরে বড়ভাঙ্গা নদীর ওপর নির্মিতব্য ‘দেশরত্ন শেখ হাসিনা সেতু’র নির্মাণ কাজ প্রায় ৩বছরেও শেষ হয়নি। জাকজমকপূর্ণ পরিবেশে ভিত্তিস্থাপন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে কাজ শুরুর পর কয়েক মাসের মধ্যেই তা বন্ধ হয়ে পড়ে। বর্তমানে কয়েকটি পিলার ঠাঁয় দাঁড়িয়ে আছে। নির্মাণ কাজ বন্ধ থাকায় উপজেলাবাসীর মধ্যে তীব্র হতাশা বিরাজ করছে। ২০১৮ সালের ১৮এপ্রিল উপজেলা সদরের স্থানীয় ডাকবাংলো প্রাঙ্গণে ‘দেশরত্ন শেখ হাসিনা সেতু’র ভিত্তিস্থাপনের ফলক উন্মোচন করেন সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী এবং সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য ইয়াহইয়া চৌধুরী এহিয়া। এ সময় বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের তৎকালিন চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো. আবদাল মিয়া, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আব্দুল হকসহ জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিক, সাংবাদিকসহ বিপুল সংখ্যক স্থানীয় নাগরিক উপস্থিত ছিলেন।সেতু নির্মাণ কাজ বর্তমানে ‘প্রায় পরিত্যক্ত’ পড়ে আছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে নামকরণকৃত ‘দেশরত্ন শেখ হাসিনা সেতু’ আদৌ হবে কি-না কেউ সঠিক বলতে পারছেন না। এ নিয়ে উপজেলাবাসীর মধ্যে তীব্র ক্ষোভ এবং হতাশা বিরাজ করছে। বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার নাগরিকদের অভিমত ‘দেশরত্ন শেখ হাসিনা সেতু’ বাস্তবায়ন হলে বালাগঞ্জের উন্নয়নে এটি হবে বর্তমান সরকারের এক অনন্য উদাহরণ।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!