বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনারকে (ভূমি) ‘দিদি’ বলায় মাছের থালায় লাথি



ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সঞ্চিতা কর্মকারকে এক মাছ বিক্রেতা ‘দিদি’ বলায় তিনি ক্ষুব্ধ হয়ে মাছ ব্যবসায়ীকে বলেন, ‘আমি তোর কিসের দিদি।’ রাগান্বিত হয়ে তিনি মাছের ঝুঁড়িতে লাথি দিয়ে ঝুড়িসহ মাছ ফেলে দেন ড্রেনে। গত রোববার সকালে ফেঞ্চুগঞ্জ পূর্ব বাজার ডাক বাংলোর সম্মুখে এ ঘটনা ঘটেছে।
জানা যায়, ওইদিন সকালে ফেঞ্চুগঞ্জ ভূমি অফিসের কার্যালয়ে প্রবেশ করার সময় মাছ ব্যবসায়ী লায়েক আহমদকে ডেকে নিয়ে কার্যালয়ের রাস্তার পাশ সরাতে বলেন। এ সময় লায়েক এসিল্যান্ড সঞ্চিতা কর্মকারকে দিদি ডেকে বলেন, ‘দিদি সরিয়ে নিচ্ছি।’ আমি তোর কিসের দিদি বলে এসিল্যান্ড লাথি দিয়ে মাছের ঝুঁড়ি সহ মাছ ড্রেনে ফেলে দেন। এ বিষয় নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। শত শত পোস্ট ও কমেন্টের মাধ্যমে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন একাধিক ব্যক্তি।
মাছ ব্যবসায়ী হাসান মিয়া জানান, আমাদেরকে বাস্টার্ড বলেও এসিল্যান্ড গালি দেন। এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সঞ্চিতা কর্মকারের সাথে মোটো ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন মাছ বিক্রেতা মাছের ঝুড়ি নিয়ে আমার বাউন্ডরির ভিতর প্রবেশ করছিল আমি আমার ব্যবস্হা নিয়েছি। এর চেয়ে বেশি কিছু তার বলার নেই বলে তিনি ফোন রেখে দেন।
এদিকে বিষয়টি নিয়ে মৎস্য সম্প্রদায়ের লোকজন ক্ষোভে ফুটে উঠেছেন। বিভিন্ন যোগাযোগ মাধ্যমে ও সোশ্যাল মিডিয়ায় বিষয়টি বেশ ট্রল হচ্ছে। ভূমি কর্মকর্তা যদি বিষয়টি মিটমাট না করেন তাহলে হয়তো হলে যে কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানা গেছে।
তবে এব্যাপারে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার সর্বস্তরের জনগনের মনে ক্ষোভ বিরাজ করছে। কারন এমন ঘটনা এর আগে ফেঞ্চুগঞ্জ ঘটেনি।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!