রবিবার, ২৬ জুন ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

প্রবাসী বালাগঞ্জ-ওসমানীনগর আদর্শ উপজেলা সমিতির নির্বাচন – ২০১৮

প্রবাসী বালাগঞ্জ-ওসমানীনগর উপজেলা সমিতির নির্বাচনে সফিক-কুদ্দুছ-জিলু পরিষদের জয়লাভ



 

ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে গত ১৬ই সেপ্টেম্বর (রবিবার) পূর্ব লন্ডনের এনসাইন ইয়োথ ক্লাবে প্রবাসী বালাগঞ্জ-ওসমানীনগর আদর্শ উপজেলা সমিতির ত্রি-বার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। নির্বাচনে দুটি প্যানেল অংশগ্রহণ করে। ‘ঘর’ প্রতিক নিয়ে সফিক-কুদ্দুছ-জিলু পরিষদ ও ‘সানফ্লাওয়ার’ প্রতিক নিয়ে কুদ্দুছ-আহাদ-শাবুল পরিষদ। শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হওয়া এই নির্বাচনে সকাল ১০ঘটিকা থেকে ৬:২০ঘটিকা পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণের পর গভীর রাতে ফলাফল ঘোষণা করা হয়। ঘোষিত ফলাফলে প্রতিদ্বন্ধি ‘ঘর প্যানেল’কে পূর্ণ প্যানেলে বিপুল ভোটে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়।

যেখানে ঘর প্যানেলের সভাপতি প্রার্থী সফিক উল্লাহ মিছলু ১৪৩১ ভোট পেয়ে বিজয়ী এবং তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি সানফ্লাওয়ার প্যানেলের আব্দুল কুদ্দুস শেখ ১২২০ ভোট পান। সাধারণ সম্পাদক পদে ঘর প্যানেলের আব্দুল কুদ্দুস ১৪৯৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী এবং তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি সানফ্লাওয়ার প্যানেলের মোঃ আব্দুল আহাদ ১১৫৬ ভোট পান। ট্রেজারার পদে ঘর প্যানেলের আব্দুল হাকিম জিলু ১৪৬৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী এবং তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি সানফ্লাওয়ার প্যানেলের সাহাব উদ্দিন আহমদ সাবুল ১১৭১ ভোট পান। সর্বমোট ২৩টি পদের মধ্যে সকল পদেই ঘর প্যানেলের সকল প্রার্থীবৃন্দ বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন।

ব্রিটেনের সামাজিক সংগঠনের মধ্যে অন্যতম বৃহৎ এই সমিতির নির্বাচনে কমিশনার হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন বিশিষ্ট কমিউনিটি ব্যাক্তিত্ব জনাব শাহ্ মুনিম, মোঃ ছুরুক মিয়া ও জামাল আহমদ খান। পর্যবেক্ষক হিসেবে প্রখ্যাত আইনজীবী, সাংবাদিক ও বিভিন্ন শ্রেণী পেশার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ ছাড়াও প্রবাসী বালাগঞ্জ-ওসমানীনগর আদর্শ উপজেলা সমিতির সভাপতি নেসার আলী সমসু, সাধারণ সম্পাদক এম এ কাইয়ুম, ট্রেজারার আজাদুর রহমান আজাদ, প্রবাসী বালাগঞ্জ-ওসমানীনগর এডুকেশন ট্রাস্টের সভাপতি রবিন পাল, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মীরু ও ট্রেজারার আনসার মিয়া দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়াও টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের মেয়র জন বিগস, আব্দুল মুকিত চুনু এমবি, হাসান মাহমুদ এমবি, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের সভাপতি সৈয়দ নাহাস পাশা, ব্যারিষ্টার আতাউর রহমান, সাবেক কাউন্সিল লিডার হেলাল উদ্দিন আব্বাস, সাবেক স্পিকার কাউন্সিলার সাবিনা আক্তার, কাউন্সিলর অহিদ আহমদ, কাউন্সিলার সাদ চৌধুরী, কাউন্সিলার আহবাব হোসেন, কাউন্সিলার শাহ্ সুহেল আমিন, কাউন্সিলার দীপা দাস, দর্পন সম্পাদক রহমত আলী, ব্যাস্টিার নাজির আহমদ, কাউন্সিলর মতিনুজ্জামান, ব্যারিস্টার তারেক চৌধুরী এবং আরও বেশ কয়েকজন কাউন্সিলার ও বিভিন্ন মিডিয়ার কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন করে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন।

প্রায় ৩০ বছরের ও বেশি পুরনো এই সংগঠনটি দেশের শিক্ষা, অসহায় গরীবদের বিভিন্ন ক্ষেত্রে সাহায্য, রাস্তা-ঘাট সংস্কার সহ বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডে নিরবে দীর্ঘকাল ধরে কাজ করে যাচ্ছে। এবারের বিজয়ী সফিক-কুদ্দুছ-জিলু পরিষদের ও নির্বাচনী অঙ্গীকারনামা রয়েছে। যার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে – ১. বালাগঞ্জ- ওসমানীনগর বেকারদের জন্য প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা গ্রহণ ২. যুক্তরাজ্যে অধ্যায়নরত দুই উপজেলার ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য  প্রচলিত মেধাভিত্তিক পদক প্রদান চালু রাখা ৩. বালাগঞ্জ-ওসমানীনগরে গৃহহীনদের মধ্যে নির্মাণ প্রকল্প গ্রহন ও ৪. বালাগঞ্জ-ওসমানীনগরে বিভিন্ন স্থানে গরীব ও অসহায়দের জন্য অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা। এসব অঙ্গীকারনামা বাস্তবায়নে সদ্য বিজয়ী সভাপতি সফিক উল্লাহ মিছলু দৃঢ় অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন।

 

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!