শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফেঞ্চুগঞ্জে সরকারি জায়গার গাছ চুরি, থানায় মামলা



সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে সরকারি জমি থেকে লক্ষাধিক টাকার গাছ চুরির ঘটনায় থানায় অভিযোগ করেছেন স্থানীয় ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা।

তবে স্থানীয় একটি যুব সমিতি গাছরোপন ও পরিচর্যার দায়িত্বে ছিল বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।

ঘিলাছড়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসের ইউনিয়ন ভূমি সহকারি কর্মকর্তা মোঃ আহাদ আলী জানান, গত শুক্রবার (১২ এপ্রিল) ভোরে ঘিলাছড়া পরগনা বাজার এলাকায় সরকারি ১ নং খতিয়ানের অন্তরভূক্ত মৌজা- মোমিনছড়া, জেএল নং ১৫ এবং ১৩১২ নং দাগে লাগানো আকাশি, তেজি ও বেলজিয়াম প্রজাতির গাছগুলো প্রচন্ড এক ঘুর্ণিঝড়ে উপড়ে ফেলে।

বিষয়টি প্রশাসনকে না জানিয়ে একটি চক্র গাছগুলো রাতের আঁধারে বিক্রি করে ফেলে। পরগনা বাজার দু’টি মিলে ৩২টি কাটা গাছ রাখা আছে জানতে পেরে সহকারী ভূমি কর্মকর্তা আহাদ আলী উপজেলা এসিল্যান্ড সঞ্চিতা কর্মকারকে ঘটনাটি অবহিত করেন। যার বাজার মুল্য ধরা হয়েছে ৮৫ হাজার টাকা। ভূমি কর্মকর্তার নির্দেশে বুধবার (১৭ এপ্রিল) ফেঞ্চুগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা সঞ্চিতা কর্মকার জানান, সরকারি জমির গাছগুলি চুরি করে নেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় দু’টি মিলে গাছগুলো পেয়ে তা জব্দ করা হয়েছে। নবাগত উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সেলিনা ইয়াছমিন গাছগুলি ছাড়িয়ে নিতে আমার (এসিল্যান্ড) মোবাইলে কল করেছিলেন তবে সরকারি বিধি মেনেই থানায় মামলার জন্য এজহার পাঠানো হয়েছে। উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সেলিনা ইয়াছমিন জানান, স্থানীয় একটি সমিতির সদস্যরা মাঠ খালি পেয়ে বিভিন্ন প্রজাতির গাছ রোপন করেছিল। ঘুর্ণিঝড়ে উপড়ে ফেলায় সমিতির সদস্যরা আইনি বিষয়টি না জেনে তাদের লাগানো গাছগুলো সরিয়ে নিয়েছিল। স্থানীয়ভাবে নিস্পত্তির জন্য এসিল্যান্ডকে কল করেছিলেন বলে জানান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সেলিনা ইয়াছমিন।

এ ব্যাপারে ফেঞ্চুগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল বাশার মোঃ বদরুজ্জামান জানান, অভিযোগ পেয়েছি, গাছ চুরির মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন