বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মন্ত্রী বানিয়ে প্রবাসীদের সম্মান দিয়েছেন : পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন



ইউরোপীয় আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় এম নজরুল ইসলামকে অভিনন্দন জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, নেত্রী শেখ হাসিনা এবং দলের প্রতি নিবেদিত প্রাণ কর্মীরা নেতৃত্বে আসলে শুধু দল নয়, দেশও লাভবান হয়। দেশ ও জনবান্ধব কর্মসূচী বাস্তবায়নে এই নেতৃত্ব কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে। একথা স্বীকার্য সামাজিক ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক উন্নয়ন এখন বিশ্ব সম্প্রদায়ের অন্যতম আকর্ষণের বিষয়। নারীর ক্ষমতায়নে আমাদের দেশ আজ অনেক রাষ্ট্রের জন্য অনুকরনীয়। উন্নত দেশের কাতারে সামিল হতে বাংলাদেশ যে গতিতে দৌড়াচ্ছে, সেই গতি অব্যাহত রাখতে শুধু সরকার নয়, দলকেও জনগনকে সাথে নিয়ে ভূমিকা রাখতে হবে। যোগ্য নেতৃত্ব এই ভূমিকায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারে। আর নজরুল ইসলাম সে রকমই একজন যোগ্য নেতা।

পররাষ্ট্র মন্ত্রী বলেন, আমি আপনাদের মত একজন সিলেটি প্রবাসী। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মন্ত্রী বানিয়ে প্রবাসীদের সম্মান দিয়েছেন। আপনারা জানেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরকে আধুনিকরণ করার জন্য তিন হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন। বিমান বন্দরের কাজ প্রায় সম্পূর্ণ হলে কিছু দিনের মধ্যে সিলেট-লন্ডন ফ্লাইট স্থায়ী ভাবে চালু হয়ে প্রবাসীদের দীর্ঘদিনের দাবি পূরণ হবে। আরো অনেক উন্নয়নমূলক কাজ পর্যায়ক্রমে সম্পূর্ণ হবে বলে তিনি জানিয়ে বলেন, সরকারের উন্নয়নমূলক কাজে আপনাদের সক্রিয় ভূমিকা থাকা প্রয়োজন আছে বলে আমি মনে করি। শেখ হাসিনার মত একজন রাষ্ট্রনেতা পেয়ে আমরা গর্বিত। মহান আল্লাহ্ তায়ালার নিকট তাঁর সুস্থতা ও দীর্ঘায়ু কামনা করি। মাননীয় নেত্রী আমাদের বলে দিয়েছেন বাংলাদেশ আগামী ২০২১সালের মধ্যে মধ্য আয়ের দেশে পরিণত হবে। বিশেষ করে ২০৪১সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু’র স্বপ্ন, আমাদের স্বপ্ন, প্রবাসীদের স্বপ্নের বাংলাদেশ হবে একটি সোনার বাংলা। যার ফলে অন্ন, বস্ত্র বাসস্থানের জন্য আমাদের হা-হা কার করতে হবেনা। সবার জন্য অন্ন, বস্ত্র বাসস্থান শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত হবে। সে আশা নিশ্চিত করতে আমরা নিরলস কাজ করছি। দেশের মঙ্গলের জন্য উন্নয়নমূলক কাজে প্রবাসীদের হাত প্রসারিত করে এগিয়ে আসতে তিনি আহ্বান জানান।পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সবার সহযোগিতার জন্য সব সময় প্রস্তুত আছে বলে তিনি জানান।

গত বৃহস্পতিবার (২মে)  লন্ডনের কেমডেন টাউনে মহারাণী রেস্টুরেন্টে এম নজরুল ইসলামের সম্মানে যুক্তরাজ্য যুবলীগ আয়োজিত এক সংবর্ধনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

যুক্তরাজ্য যুবলীগের সভাপতি ফখরুল ইসলাম মধুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সেলিম আহমদ খাঁনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এই সংবর্ধনায় প্রধান বক্তা ছিলেন, প্রধান মন্ত্রীর সাবেক স্বাস্থ্য বিষয়ক উপদেষ্ঠা অধ্যাপক সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী। বিশেষ অতিথি ছিলেন, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ, উপদেষ্টা পরিষদের সভাপতি আলহাজ্ব শামসুদ্দিন খান, সহ-সভাপতি অধ্যাপক আবুল হাশেম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী ও সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আহাদ চৌধুরী, মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক সারব আলী, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য মিসবাউর রহমান মিসবা, কাওসার আহমেদ ও খসরুজ্জামান খসরু। যুক্তরাজ্য যুবলীগের সহ-সভাপতি নাজমুল ইসলাম, ফিরোজ আহমেদ, মাহবুব আহমদ, সৈয়দ আজিজুর রহমান, ফয়জুর রহমান চৌধুরী, আফজল হোসেন, শেখ নুরুল ইসলাম জিতু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জামাল আহমদ খাঁন, দেলোয়ার হোসেন লিটন প্রমুখ।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে প্রধান মন্ত্রীর সাবেক স্বাস্থ্য বিষয়ক উপদেষ্ঠা অধ্যাপক সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী বলেন, দলীয় প্রধান মাননীয় প্রধান মন্ত্রী মানুষ চিনেন, এটি তাঁর অন্যতম বড় একটি যোগ্যতা। নজরুল ইসলামকে ইউরোপীয় আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত করার মাধ্যমে সেটিই আবার প্রমান হলো। অধ্যাপক নজরুল ইসলামকে বঙ্গবন্ধু অন্তপ্রাণ একজন কর্মী আখ্যায়িত করে বলেন, তাঁর নেতৃত্বে ইউরোপে দল আরও সুদৃঢ় হবে এটি আমার বিশ্বাস। তিনি নবনির্বাচিত ইউরোপিয়ান সভাপতির সাফল্য কামনা করে আরো বলেন, শেখ হাসিনা বিরোধী বহুমূখী ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে নজরুলের নেতৃত্বে ইউরোপীয় আওয়ামী লীগ বিশাল বাঁধার প্রাচীর হয়ে দাঁড়াবে এমনটিই আমরা কামনা করি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ ১/১১সহ দলের বিভিন্ন দুর্যোগ মোকাবেলায় নজরুল ইসলামের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার কথা স্মরণ করে বলেন, এমন একজন কর্মীর উপযুক্ত মূল্যায়ন করে প্রধান মন্ত্রী আমাদেরই সম্মানিত করলেন, আমরা এজন্য কৃতজ্ঞ তাঁর প্রতি। তিনি বিশেষ অতিথি আলহাজ্ব শামসুদ্দিন খান ও অধ্যাপক আবুল হাশেমও ইউরোপীয়ান আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত সভাপতি এম নজরুল ইসলামের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, যোগ্য কর্মীই ইউরোপীয় আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে এসেছেন, কৃতজ্ঞতা প্রধান মন্ত্রীর প্রতি।

সংবর্ধিত অতিথি এম নজরুল ইসলাম নেতাদের বক্তব্যের জবাবে সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, সবার সহযোগিতাই  অতিতে দলের কাজে আমাকে সাহস যুগিয়েছে। নেতৃত্ব আমার কাছে বড় নয়। দল, বঙ্গবন্ধু ও প্রাণপ্রিয় নেত্রীর প্রতি আনুগত্য রেখে আজীবন যাতে সহকর্মীদের সাথে নিয়ে একসাথে দলের কাজ করতে পারি সেই আশির্বাদই সবার কাছে চাই। তাঁকে এতবড় গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দেয়ায় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে এম নজরুল ইসলাম বলেন, নেত্রীর   সিদ্ধান্ত মেনে নিয়ে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেয়ায় ইউরোপীয়ান আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের প্রতিও আমার কৃতজ্ঞতার শেষ নেই। বিশেষ করে তিনি যুক্তরাজ্য আওয়ামী যুবলীগ কে একটি সুন্দর অনুষ্টান করার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানান ।

সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন যুক্তরাজ্য যুবলীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম মহসিন।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!