রবিবার, ২৬ জুন ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিসিবির বিহিত



দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গকারী ক্রিকেটারদের ক্ষেত্রে বিসিবি কঠোর। ছবি : ইন্টারনেট

৩১ থেকে ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা। বলছিলাম এশিয়া কাপে বাংলাদেশ স্কোয়াড ঘোষণার কথা। বিস্ময় নয় বরং যেন স্বাভাবিক ছিল সাব্বির রহমানের নাম না থাকা। কিন্তু পারফর্মের জন্য নয় সম্ভবত বাংলাদেশে এই প্রথম কোন ক্রিকেটার বিশৃঙ্খল জীবনাচরণের জন্য বাদ পড়লেন দল থেকে। এ মুহুর্তে এ সিদ্ধান্ত কে সাধুবাদ জানাতেই হয়। তার কারণ?

দেশের ক্রিকেটভক্ত সমর্থকদের কাছে ক্রিকেটাররা ভালোবাসার আরেক নাম। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সুনাম বয়ে নিয়ে আসা ক্রিকেটাররা কিশোর থেকে যুবাদের জন্য আদর্শ। ক্রিকেট যতই উন্নতি করছে সে সাথে ক্রিকেটার হওয়ার আগ্রহ,সন্তানকে ক্রিকেটার বানানোর উৎসাহ দেখা যায়। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে ক্রিকেটাররা সমালোচিত হচ্ছেন মাঠের বাইরের তথা ব্যক্তিকেন্দ্রিক ব্যাপার স্যাপার নিয়ে। যাদের অধিকাংশ নারী কেলেঙ্কারি। বলা বাহুল্য একজন ক্রিকেটারের ক্রিকেট ছাড়াও জীবন আছে। সে জীবনে সে মানুষ হতে চায়,আদর্শ হতে চায়। কিন্তু কিছু অরুচিশীল ক্রিকেটার সেটা আমলে নেয় না। কারও কারও পারফরমেন্সে সে প্রভাব পড়ে কারও পড়ে না। কিন্তু দলের স্বার্থে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গকারী কে দলের বাইরে পাঠিয়ে দিলে ক্রিকেটের জন্যই মঙ্গল এ বিষয়ে বিসিবি যথেষ্ট ওয়াকিবহাল। হয়তো সেজন্য সাব্বির বিগহিটার তকমা থাকার পরও বাদ পড়তে হল। সে সাথে মোসাদ্দেকদের জন্য নিশ্চয়ই সতর্কবাণী পৌছে গেল।

বিশৃঙ্খল জীবনাচরণের দলে অন্যান্যদের সাথে সাব্বির এর পর এখন মোসাদ্দেক। ছবি : ইন্টারনেট

ম্যারাডোনার দেশে ফুটবল যেমন আবেগপরায়ণ,সাম্বার দেশে ফুটবল যেমন ধর্মের সমান, লাল সবুজের ভেতর তেমনি ক্রিকেট মহামারী আকার ধারণ করতে যাচ্ছে। তাইতো আদর্শদের আদর্শ ঠিক রাখতে বিসিবির সঠিক বিহিত অব্যাহত থাকুক। বিহিত যদি থাকে তাহলে সাব্বিরদের মত হিটার বার বার জন্মাবে কিন্তু বাদ পড়তে হবে না ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!