রবিবার, ২৬ জুন ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বরাদ্দের অভাবে বিকল হয়ে পড়ে আছে ফেঞ্চুগঞ্জ হাসপাতালের একমাত্র অ্যাম্বুলেন্স



সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জের ৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের একমাত্র অ্যাম্বুলেন্স (সিলেট – ছ ৭১-০০৬৭) প্রায় ২ মাস যাবত বিকল অবস্থায় গ্যারেজে পড়ে আছে। এতে করে অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন ফেঞ্চুগঞ্জের জনসাধারণ।

ফেঞ্চুগঞ্জ হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, ২০০৯ সালে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জন্য অ্যাম্বুলেন্স প্রদান করেন। তারপর থেকে এটি ব্যবহার করে উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের অনেক গুরুতর অসুস্থ রোগী সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গিয়ে দ্রুত চিকিৎসা নিয়েছেন। আরও জটিল রোগে আক্রান্ত রোগীরা এটি ব্যবহার করে বিভিন্ন প্রাইভেট হাসপাতালে গিয়ে উন্নত চিকিৎসা নিয়ে বর্তমানে সুস্থ জীবনযাপন করছেন। কিন্তু গত অক্টোবরের ২২ তারিখ রোগী নিয়ে সিলেটে যাওয়ার পথে খালরমুখ নামক স্থানে অ্যাম্বুলেন্সটি হঠাৎ করে নষ্ট হয়ে যায়। অ্যাম্বুলেন্স বিকল হওয়ার পরের দিন বিআরটিএ বরাবর লিখিত আবেদন করে ফেঞ্চুগঞ্জে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। পরে বিআরটিএ অ্যাম্বুলেন্সে কাজ করানোর নির্দেশও দেয়। তবে অ্যাম্বুলেন্স মেরামতের বরাদ্দ আসতে বিলম্ব হচ্ছে।

এদিকে, প্রায় ২মাস যাবত এটি বিকল থাকায় উপজেলার জনসাধারণ অকল্পনীয় দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। এমনকি অসুস্থদের সঠিক চিকিৎসা প্রদানের জন্যে দ্রুত সময়ে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়াও সম্ভব হচ্ছে না।

ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অ্যাম্বুলেন্স চালক মো. লিটন জানান, দুইমাস ধরে গাড়িটি নষ্ট অবস্থায় সিলেটের একটি গ্যারেজে পড়ে আছে। গাড়ির ইঞ্জিন সিস হয়ে গেছে। এটি মেরামত করতে ১ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা খরচ হবে।  অ্যাম্বুলেন্সের জন্য প্রতিদিন বিভিন্ন রোগীর স্বজনরা আমাকে কল দেন কিন্তু অ্যাম্বুলেন্স পান না।

এ বিষয়ে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শফিকুল আলম বলেন, অ্যাম্বুলেন্স মেরামতের জন্য সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষের বরাবর আবেদন করা হয়েছে। বরাদ্দ আসলেই অ্যাম্বুলেন্স মেরামত করা হবে।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!