রবিবার, ২৬ জুন ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বালাগঞ্জে এম.এ ট্রাস্ট’র চিকিৎসায় ৩২জন রোগীর ‘দৃষ্টিশক্তি পুনরুদ্ধার’



বালাগঞ্জ উপজেলার দেওয়ান বাজার ইউনিয়নের ‘হাজী মকদ্দছ আলী এণ্ড আহমদ আলী ট্রাস্ট’ (এম.এ ট্রাস্ট)’র অর্থায়নে বিনামূল্যে ছানি অপারেশনের পর দৃষ্টিশক্তি ফিরে পেয়েছেন গরিব ও অসহায় ৩২জন চক্ষুরোগী। ওসমানীনগর উপজেলার ভার্ড চক্ষু হাসপাতালে এসব রোগীদের অপারেশন করে দেয়া হয়েছে। প্রায় সপ্তাহব্যাপী রোগীদের চিকিৎসা শেষে গত বুধবার (২৩ জানুয়ারি) দুপুরে তাদের চুড়ান্ত চক্ষুপরীক্ষা সমাপ্ত হয়।

উপজেলার দেওয়ান বাজার ইউনিয়নের আলাপুরস্থ প্রয়াত হাজী মকদ্দছ আলী মেম্বারের বাড়িতে এসব রোগীদের সমাপনী চক্ষুপরীক্ষাকালে ‘হাজী মকদ্দছ আলী এণ্ড আহমদ আলী ট্রাস্ট’ (এম.এ ট্রাস্ট)’র চেয়ারম্যান, যুক্তরাজ্য প্রবাসী আজমল আলী আনা, ট্রাস্টের সমন্বয়ক জাহাঙ্গীর হোসেন, বিশিষ্ট রাজনীতিক মো. দুদু মিয়া, বালাগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক মো. জিল্লুর রহমান জিলু, সমাজকর্মী সৈদুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ছানি অপারেশন শেষে সমাপনী চক্ষুপরীক্ষায় আগত রোগীরা এম.এ ট্রাস্ট’র মহতী উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। এ বিষয়ে আলাপকালে হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচঙ্গ উপজেলার মাওলানা মুহিউদ্দিন (৬৫), বালাগঞ্জ উপজেলার দেওয়ান বাজার ইউনিয়নের ছমরুন্নেছা (৭৫), সারি বেগম (৬০), আছাব আলী (৫৫), সমছু মিয়া (৬৫), মশাহিদ আলী (৪৮), আউলিয়া খানম (৬০), রাশেদা বেগম (৫৫), পশ্চিম গৌরীপুর ইউনিয়নের খেলারুন নেছা (৫০) এবং ওসমানীনগর উপজেলার মইরম বিবি (৭০) প্রমুখ ছানি অপারেশনের মাধ্যমে দৃষ্টিশক্তি ফিরে পেয়ে আনন্দ প্রকাশ করেছেন।

আলাপকালে মশাহিদ আলী বলেন, ছানিঅপারেশনের মাধ্যমে দৃষ্টিশক্তি ফিরে পেয়ে দীর্ঘ ৪বছর পর তিনি পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করতে পেরেছেন। একই রকম প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন মাওলানা মুহিউদ্দিন, মইরম বিবিসহ অন্যরা। এসব চক্ষুরোগীরা ছানি অপারেশনের মাধ্যমে তাদের ‘দৃষ্টিশক্তি পুনরুদ্ধার’ হওয়ায় আনন্দিত।

উল্লেখ্য, গত ১৭ জানুয়ারি এম.এ ট্রাস্ট’র অর্থায়নে ওসমানীনগর উপজেলার তাজপুর ভার্ড চক্ষু হাসপাতালের সহযোগীতায় দিনব্যাপী এক চক্ষু শিবির অনুষ্ঠিত হয়। প্রয়াত হাজী মকদ্দছ আলী মেম্বারের আলাপুরস্থ বাড়িতে অনুষ্ঠিত চক্ষুশিবিরে প্রায় সাড়ে ৫’শ রোগীকে বিনামূল্যে ব্যবস্থাপত্র, ঔষধ ও চশমা প্রদান করা হয়। এদের মধ্যে ৩২জন জটিল চক্ষুরোগীকে ওসমানীনগর ভার্ড চক্ষুহাসপাতালে নিয়ে বিনামূল্যে অপারেশন করে দেয়া হয়েছে। ইতোপূর্বে ২০১৫ সালেও এমএ ট্রাস্টের অর্থায়নে প্রায় ৫০জন চক্ষুরোগীকে বিনামূল্যে ছানি অপারেশন করে দেয়া হয়েছিল।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!