শনিবার, ২৫ মে ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লেবাননে আওয়ামী যুবলীগ লেবানন শাখার শুভ উদ্বোধন ও আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন



লেবাননে লায়লাকির কামাল হোটেলে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ লেবানন শাখার শুভ উদ্বোধন উপলক্ষে বিশাল মনমুগ্ধকর অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয় এবং আওয়ামী লীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কেক কাটা হয়।

লেবানন যুবলীগের নবনির্বাচিত সভাপতি শুভ মুন্সির সভাপতিত্বে এবং লেবানন আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্মসাধারণ সম্পাদক আলমগীর ইসলাম ও লেবানন যুবলীগের নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক রবিউল সানির যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লেবানন আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি বাবুল মুন্সি।
বিশেষ অতিথি হিসেবে আওয়ামী যুবলীগের নেতৃবৃন্দদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, নাজমুল হোসেন, নূর বেগম, কাজী মোহাম্মদ শরীফ, সোহেল মুন্সি, জসিম উদ্দিন, শাকিল সরদার, জাহাঙ্গীর, মতিউর রহমান মিন্টু মুন্সি প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে লেবানন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন – সিনিয়র সহ-সভাপতি সুফিয়া আক্তার বেবি, সহ সভাপতি রুবেল আহমে, সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান টিটু, মোহাম্মদ আলি, জাকির হোসেন, রুহুল আমিন, প্রচার সম্পাদক মোহসিন মৃধা, লেবানন শ্রমিকলীগের সভাপতি ওসমান গনিসহ অনেকে ।
এছাড়াও শাখা কমিটির নেতৃবৃন্দের মধ্যে বক্তব্য রাখেন – করিম শেখ, সবুজ দেওয়ান, নজরুল রহমান, সাথী আক্তার, খোরশেদ আলম, আনোয়ার সর্দার, লিটন আহমেদ, তাইজুল ইসলামসহ অনেকে।
অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক নূর মোহাম্মদ । পরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

বক্তারা লেবাননে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোতালেব সরকারের ভূঁয়সী প্রশংসা করেন। তারা বলেন, রাষ্ট্রদূতের নেয়া প্রবাসীদের জন্য প্রতিটি পদক্ষেপ প্রশংসনীয়। প্রবাসীদে মঙ্গলার্থে তিনি নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। অথচ একটি অসাধু দালাল গুষ্ঠি তাদের ফায়দা লুটতে পারছেনা বিধায় তারা উঠে পরে লেগেছে রাষ্ট্রদূতের বিরুদ্ধে। এই সব দালালরা কিছু নামধারী আওয়ামী লীগ ও জামায়াত বিএনপির সাথে হাত মিলিয়ে রাষ্ট্রদূতের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপপ্রচার চালাচ্ছে। কিন্তু লেবানন আওয়ামী লীগ এসব অপপ্রচার প্রতিহত করবে।

বক্তারা আরো বলেন, রাষ্ট্রদূত প্রবাসীদের জন্য যে কাজ হাতে নিয়েছেন, তিনি যদি চলে যান সেই কাজ বন্ধ হয়ে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে। রাষ্ট্রদূত লেবানন সরকারের সাথে সুসম্পর্ক তৈরি করতে স্বক্ষম হয়েছে। সেই সম্পর্কের জেরেই রাষ্ট্রদূত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বৈধ কগজপত্র বিহীন প্রবাসীদের বৈধ করনের এবং অবৈধ প্রবাসীদে বিনা জরিমানায় দেশে প্ররণের সুযোগের। সেই সাথে কাজ করছেন প্রবাসীদের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে।

এই মহৎ কাজ সম্পন্ন করতে নেতৃবৃন্দ অন্তত আরো ২বছর রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোতালেব সরকারকে লেবাননে রাখার জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!