রবিবার, ৯ মে ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৬ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ঘরের মাঠে হোয়াইটওয়াশ বাংলাদেশ



মেহেদী হাসান মিরাজের ব্যাটিং দৃঢ়তায় উইন্ডিজের বিপক্ষে জয়ের দ্বারপ্রান্তে এসে ১৭ রানে হেরেছে টাইগাররা। এর ফলে দুই ম্যাচের সিরিজে ২-০ ব্যবধানে হারল মুমিনুল বাহিনী।

এর আগে ২০১৯ সালে ঘরের মাঠে আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্টে হেরেছিল বাংলাদেশ। ২০১২ সালের পর এশিয়ার মাটিতে প্রথম টেস্ট সিরিজ জিতল ওয়েষ্ট ইন্ডিজ। ২০১৭ সালের পর ঘরের বাইরে উইন্ডিজের এটি প্রথম সিরিজ জয়। চট্টগ্রাম টেস্টে ক্যারিবিয়ানরা ৩ উইকেটে জিতেছিল। টেষ্ট সিরিজে বাংলাদেশ দুর্বল উইন্ডিজের বিপক্ষে হোয়াইটওয়াশ হবে কেউ কল্পনাও করেনি। ক্যারিবিয়ানরা হোয়াইটওয়াশ করে হারিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে সাদা-পোশাকে তারা টাইগারদের চেয়ে ভাল দল।

ক্ষণে ক্ষণে রঙ পাল্টিয়ে ঢাকা টেস্ট। জয়ের পাল্লা একবার ঝুকছে বাংলাদেশের দিকে আরেক বার উইন্ডিজের দিকে। কে জিতবে ঢাকা টেষ্ট এ নিয়ে ছিল অনেক জল্পনা কল্পনা। দুপুরের পর ১৪৪ কেজি ওজনের স্পিনার রাহকিম কর্ণওয়েলের বলে ক্যাচ দিয়ে লিটন দাস সাজ ঘরে ফেরার পর টাইগারদের হার নিশ্চিত হয়ে যায়। ৩৫ বলে ২২ রান করে আউট হন তিনি। এর পর মেহেদী হাসান মিরাজ- তাইজুল ইসলামকে নিয়ে ম্যাচ বাঁচানোর চেষ্টা করছেন।

ঢাকা টেষ্টে উইন্ডিজ প্রথম ইনিংসে সংগ্রহ করে ৪০৯ রান। জবাবে বাংলাদেশ ২৯৬ রানে অলআউট হয়। দ্বিতীয় ইনিংসে সফরকারীদের ১১৭ রানে গুটিয়ে দিয়ে ঢাকা টেষ্ট জয়ের স্বপ্ন জাগিয়ে তুলেছিল মুিুমনুল বাহিনী। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ২১৩ রানে গুটিয়ে যায় টাইগারদের ইনিংস। ফলে ১৭ রানে জয় পায় উইন্ডিজ।

২৩১ রানের লক্ষ্য নিয়ে খেলতে নেমে তামিম ৪৬ বলে ৫০, সৌম্য সরকার ৩৪ বলে ১৩, নাজমুল হোসেন ৩১ বলে ১১, মুমিনুল হক ৬৮ বলে ২৬ রান, মুশফিকুর রহীম ৩০ বলে ১৪, মোহাম্মদ মিঠুন ১২ বলে ১০ রান করেন। উইন্ডিজ বোলারদের মধ্যে রাহকিম কর্ণওয়েল ৪টি, জোমেল ওয়ারিকেন ও ক্র্যাগ ব্রাথওয়েট প্রত্যেকে ৩ টি করে উইকেট দখল করেন। অলরাউন্ডার মিরাজ এ সিরিজে ব্যাটে-বলে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন। চট্টগ্রামে ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি হাঁকানোর পর ঢাকা টেস্টে বল হাতে উইকেটের সেঞ্চুরি তুলে নেন তিনি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১ম ইনিংস: ৪০৯

বাংলাদেশ ১ম ইনিংস: ২৯৬

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২য় ইনিংস: (আগের দিন ৪১/৩) ৫২.৫ ওভারে ১১৭ (বনার ৩৮, ওয়ারিক্যান ২, মেয়ার্স ৬, ব্ল্যাকউড ৯, জশুয়া ২০, জোসেফ ৯, কর্নওয়াল ১, গ্যাব্রিয়েল ১*; তাইজুল ২১-৪-৩৬-৪, নাঈম ১৫.৫-৫-৩৪-৩, মিরাজ ৬-১-১৫-১, আবু জায়েদ ১০-৪-৩২-২)।

বাংলাদেশ ২য় ইনিংস : (লক্ষ্য ২৩১) ৬১.৩ ওভারে ২১৩ (তামিম ৫০, সৌম্য ১৩, শান্ত ১১, মুমিনুল ২৬, মুশফিক ১৪, মিঠুন ১০, লিটন ২২, মিরাজ ৩১, তাইজুল ৮, নাঈম ১৪, আবু জায়েদ ০*; কর্নওয়াল ৩০-৫-১০৫-৪, জোসেফ ২-০-১৬-০, গ্যাব্রিয়েল ২-০-৮-০, ওয়ারিক্যান ১৬.৩-৪-৪৭-৩, ব্র্যাথওয়েট ১১-১-২৫-৩)।

ফল: ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১৭ রানে জয়ী।

সিরিজ: ২ ম্যাচের সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২-০ ব্যবধানে জয়ী।

ম্যান অব দা ম্যাচ: রাকিম কর্নওয়াল।

ম্যান অব দা সিরিজ: এনক্রমা বনার।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!