শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৮ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বৃটেনসহ ইউরোপের চার দেশে ‘ওমিক্রন’ শনাক্ত



করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন শনাক্ত হওয়ায় পরিস্থিতি আবার গুমোট আকার ধারণ করছে। নতুন এই ভ্যারিয়েন্টকে কেন্দ্র করে আবার সারা বিশ্বে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। করোনার নতুন এই ধরন নিয়ে উদ্বেগ থেকে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় রয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। দেশে দেশে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা বা বিধিনিষেধ আরোপ করা হচ্ছে। দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম শনাক্ত করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন ইতোমধ্যে ইউরোপের আরও চার দেশে ছড়িয়েছে। দেশগুলো হলো বৃটেন, জার্মানি, ইতালি ও চেক প্রজাতন্ত্র। এর আগে ইউরোপের আরেক দেশ বেলজিয়ামেও ধরনটি শনাক্ত হয়। এ ছাড়া নেদারল্যান্ডসেও আক্রান্ত থাকার কথা জানা যাচ্ছে। দক্ষিণ আফ্রিকার দেশগুলোতে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা ও বিধিনিষেধের মতো পদক্ষেপ নেওয়া শুরু করেছে অনেকে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনার নতুন এ ধরনটিকে ‘উদ্বেগজনক’ বলে আখ্যায়িত করেছে।

বৃটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ বৃটেনে দুজনের ওমিক্রন ধরনে শনাক্ত হওয়ার কথা জানিয়েছেন। তিনি জানান, আক্রান্ত দুই ব্যক্তি সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকার পৃথক দুটি দেশ ভ্রমণের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট। ভাইরাসটির বিস্তার ঠেকাতে নানা কড়াকড়ি আরোপের ঘোষণা দিয়েছেন বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

এদিকে ইতালিতেও ওমিক্রনে আক্রান্ত একজনকে শনাক্ত করার খবর পাওয়া গেছে। দেশটির ন্যাশনাল হেলথ ইনস্টিটিউট জানিয়েছে, মিলানে একজনের করোনা শনাক্ত হয়েছে, ওই ব্যক্তি ওমিক্রন ধরনে আক্রান্ত। সম্প্রতি ওই ব্যক্তি দক্ষিণ আফ্রিকার সীমান্তলাগোয়া দেশ মোজাম্বিক থেকে ইতালি ফেরেন বলে জানানো হয়েছে।

দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম শনাক্ত হওয়ার পর এর আগে বতসোয়ানা, হংকং, বেলজিয়াম ও ইসরায়েলেও এ ধরনে আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছেন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, ওমিক্রন খবরে সারাবিশ্বে হিম শীতল এক আবহ ছড়িয়ে পড়েছে। উদ্বেগে সবাই। এ কারণে শুক্রবার আর্থিক বাজারগুলোতে ধস নামে। বিনিয়োগকারীরা অর্থ বিনিয়োগ থেকে পিছিয়ে যান। প্রায় দুই বছর আগে শুরু হওয়া করোনা মহামারি থেকে বিশ্ব যখন মাথা তুলে দাঁড়াতে চাইছে, তখন ওমিক্রন আতঙ্ক আবার সবাইকে গ্রাস করেছে। এরই প্রভাবে একদিনে শুক্রবার তেলের দাম ব্যারেলপ্রতি কমে গেছে প্রায় ১০ ডলার।

 

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!