শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৮ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ

ঐতিহাসিক টেস্ট জয় বাংলাদেশের



টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন নিউজি ল্যাণ্ডকে তাদেরই মাটিতে হারিয়ে টেস্টে ঐতিহাসিক এক জয় পেল বাংলাদেশ। মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে বাংলাদেশ যে জিতবে তা মঙ্গলবার দিন স্পষ্ট হয়ে উঠেছিল। আগের দিন ৫ উইকেট হারিয়ে ১৪৭ রান করা নিউজিল্যাণ্ড বুধবার সকালে আর মাত্র ২২ রান যোগ করে ১৬৯ রানে গুটিয়ে যায়। ফলে বাংলাদেশকে নিউজিল্যাণ্ডের মাটিতে ইতিহাস গড়তে প্রয়োজন হয় মামুলি ৩৯ রান। টাইগাররা সাদমান এবং নাজমুল হোসেন শান্তর উইকেট হারিয়ে ২ উইকেটের বিনিময়ে  এই রান সংগ্রহ করে নেয়। আর তাতেই বহুকাঙ্ক্ষিত এই অধরা জয়ের দেখা মিলে। নিউ জিল্যণ্ডের বিপক্ষে ৮ উইকেটের এই ঐতিহাসিক জয়ের সুবাদে বাংলাদেশ এগিয়ে গেল দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে।

কিউইদের বিপক্ষে ঐতিহাসিক জয়ে টাইগার বোলার এবং ব্যাটসম্যানরা দুর্দান্ত নৈপুণ্য প্রদর্শন করেছেন। প্রথম ইনিংসে স্বাগতিকদের ৩২৮ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ ৪৫৮ রান সংগ্রহ করে। ১৩০ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে নিউজিল্যাণ্ড। টাইগার পেসার ইবাদত হোসেন এর অগ্নিঝরা বোলিংয়ের সামনে কোমর সোজা করে দাঁড়াতে পারেনি নিউজিল্যাণ্ডের ব্যাটসম্যানরা। ম্যাচসেরা ইবাদত হোসেন ৪৬ রানে ৬ উইকেট লাভ করেন। ইতিহাস ঘাটলে দেখা যায় প্রায় ৯ বছর ও ৪৭ ম্যাচ পর টেস্টে ৫ উইকেট পেলেন বাংলাদেশের কোনো পেসার। দেশের বাইরে টেস্টে বাংলাদেশের কোনো পেসারের সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড এটি। প্রথম ইনিংসে ইবাদত পেয়েছিলেন ১ উইকেট। এই টেস্টে ৭ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জিতেছেন উদীয়মান এই পেসার।

তবে দ্বিতীয় ইনিংসে নিউজিল্যান্ডকে ১৬৯ রানে গুটিয়ে দিতে ইবাদতের সাথে অগ্রণী ভূমিকা রেখেছেন তাসকিন আহমেদ। দ্বিতীয় ইনিংসে ৩ উইকেট লাভ করেন তাসকিন আহমেদ।

উল্লেখ্য, আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের গত চক্রে ৭ ম্যাচের ৬টিতেই হেরেছিল বাংলাদেশ, বাকিটি হয়েছিল ড্র। শুরুটা পাকিস্তানের বিপক্ষে হয়েছে যাচ্ছেতাই। অবশেষে অভিজাত সংস্করণের আসরে প্রথম জয়টি ধরা দিল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

নিউ জিল্যাণ্ড ১ম ইনিংস: ৩২৮

বাংলাদেশ ১ম ইনিংস: ৪৫৮

নিউ জিল্যাণ্ড ২য় ইনিংস: (আগের দিন ১৪৭/৫) ৭৩.৪ ওভারে ১৬৯ (টেইলর ৪০, রবীন্দ্র ১৬, জেমিসন ০, সাউদি ০, ওয়্যাগনার ০*, বোল্ট ৯*: তাসকিন ১৪-৩-৩৬-৩, শরিফুল ১২-২-৩০-০, মিরাজ ২২-৫-৪৩-০, ইবাদত ২১-৬-৪৬-৬, মুমিনুল ৪-০-৭-০)

বাংলাদেশ ২য় ইনিংস: (লক্ষ্য ৪০) ১৬.৫ ওভারে ৪২/২ (সাদমান ৩, শান্ত ১৭, মুমিনুল ১৩*, মুশফিক ৫*; বোল্ট ৫-৩-৪-০, সাউদি ৫-২-২১-১, জেমিসন ৩.৫-১-১২-১, ওয়্যাগনার ৩-১-৪-০)

ফল: বাংলাদেশ ৮ উইকেটে জয়ী

সিরিজ: ২ ম্যাচ সিরিজে বাংলাদেশ ১-০তে এগিয়ে

ম্যান অব দা ম্যাচ: ইবাদত হোসেন চৌধুরী।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!