মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মৎস্যখামার শুধু লাভজনক না, আমিষের অভাব ও পূরণ করে: জেলা মৎস্য অফিসার



মৎস্যচাষ লাভজনক একটি খাত। নিয়মমাফিক সফল ভাবে মৎস্য খামার করলে লাভবান হওয়া সম্ভব। পুকুরের অবকাঠামো, পরিচর্যা সুন্দর ভাবে করতে পারলেই সফল হওয়া যাবে। এখাতের উন্নয়নের মাধ্যমে দেশে আমিষের অভাব পূরণ করা যাবে। বালাগঞ্জ উপজেলার চাষিদের মাঝে কার্প নার্সারি, পাংগাস ও পাবদা, গুলশা, টেংরা চাষ প্রদর্শনী স্থাপন বিষয়ক (২য় পর্ব) প্রশিক্ষণে চাষীদের অবকাঠামো গঠন, পরিষ্কার, পরিচর্যা, খামার করার নিয়ম, মাছের খাবার দেওয়াসহ যাবতীয় বিষয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিস্তারিত আলোচনা করেন সিলেট জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ।

রবিবার (০৫ জুন) বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তার দপ্তর এর বাস্তবায়নে ২০২১-২২ অর্থ বছরে ইউনিয়ন পর্যায়ে মৎস্যচাষ সেবা প্রযুক্তি সম্প্রসারণ প্রকল্প (২য় পর্যায়) ও (২য় সংশোধন) এর আওতায় উপজেলার ১৮ জন আর.ডি/এফ.এফ’দের কার্প নার্সারি, পাংগাস ও পাবদা, গুলশা, টেংরা চাষ প্রদর্শনী স্থাপন বিষয়ক প্রশিক্ষণ (২য় পর্ব)-এ বিশেষ অতিথির বক্তৃতা ও প্রশিক্ষণ দেন – এসএডি আরিফ হোসেন, উপ-প্রকল্প পরিচালক দ্বিজরাজ বর্মন, উপজেলা জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা নির্মল চন্দ্র বণিক, বালাগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি রজত চন্দ্র দাস ভুলন, বালাগঞ্জ বার্তার সম্পাদক শাহাব উদ্দিন শাহিন, সাংবাদিক জাগির হোসেন প্রমুখ।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!