শুক্রবার, ৭ অক্টোবর ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২২ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা নির্বাচনে দলের নির্দেশ ভেঙ্গে লড়াইয়ে বিএনপির ৫ নেতা-নেত্রী



আসন্ন ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে নির্বাচনে লড়ছেন বিএনপির চার নেতা-নেত্রী। এদের মধ্যে তিনজন চেয়ারম্যান পদে একজন ভাইস চেয়ারম্যান পদে ও একজন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়ে মাঠে রয়েছেন। তবে বিএনপি থেকে নয়, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন বলে জানান অনেক প্রার্থী। ফেঞ্চুগঞ্জে বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান জামায়াতের। তবে ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হন বিএনপির প্রার্থী, পরে দল বদল করে তিনি আওয়ামী লীগে যোগদান করেন। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগের। তার মধ্যে উপজেলা চেয়ারম্যান সাইফুল্লা আল হোসাইন এবার নির্বাচনে অংশ গ্রহন করেননি। তিনি মনোনয়ন ফরম কিনেন নি। ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচন করছেন। আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি প্রার্থীতা প্রত্যাহারের দিন। বিএনপির কারা প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেন তা এখন দেখার বিষয়। তার জন্য অবশ্য আর এক দিন অপেক্ষা করতে হবে। এদিকে জেলা বিএনপি জানিয়েছে বিষয়টি কেন্দ্রকে অবহিত করা হয়েছে। কেন্দ্র থেকে নির্দেশনা আসলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উপজেলা নির্বাচনে বিএনপির যাঁরা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লড়ছেন তাঁরা হলেন ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ওয়াহিদুজ্জামান চৌধুরী সুফি, বিএনপির প্রাবাসী কমিনিউটি নেতা হারুন আহমদ চৌধুরী, জেলা বিএনপি নেত্রী সুলতানা রাজিয়া ডলি। ভাইস চেয়ারম্যান পদে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা বিএনপির মহিলা বিষয় সম্পাদিকা ফেরদৌসি বেগম ইকবাল ও যুবদল নেতা সাহাদ মিয়া।

ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে অংশ নেওয়া ওয়াহিদুজ্জামান সুফির সাথে কথা হলে তিনি বলেন – আমি দলীয় ভাবে নয় স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছি। জনগণের আশা আকাঙ্খার প্রতিফলন ঘটাতে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি।

অপর মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ফেরদৌসি বেগম ইকবালের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন – আমি দল থেকে নয়, মানুষের সেবা করতে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক তসলিম আহমদ নেহার বলেন – দলের সিদ্ধান্ত ভঙ্গ করে যদি কেউ প্রার্থী হয়, তাহলে দল থেকে তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!