বুধবার, ৫ অক্টোবর ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২০ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

এশিয়া কাপে নিজেদের প্রথম ম‍্যাচে আফগানদের কাছে বাংলাদেশের হার



মঙ্গলবার (৩০ আগস্ট) শারজাহ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এশিয়া কাপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে আফগানিস্তান। এ জয়ের ফলে সুপার ফোর নিশ্চিত করেছে রশিদ-নবীরা। ১ সেপ্টেম্বর টাইগাররা শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নামবে। এ ম্যাচে যারা জিতবে যারাই সুপার ফোরে জায়গা পাবে। মঙ্গলবার ৬২ রানে ৩ উইকেট পড়ে গেলে চতুর্থ উইকেটে ইব্রাহীম জারদান নাজিবুল্লাহ জারদানকে নিয়ে জুটি গড়ে ৬৯ রান করে দলকে সহজ জয় উপহার দেন। টাইগারদের সাকিব, মোসাদ্দেক ও সাইফউদ্দিন প্রত্যেকে একটি করে উইকেট লাভ করেন। বাংলাদেশের ১২৭ রানের জবাবে খেলতে নেমে ১৮.৩ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৩১ রান সংগ্রহ করে আফগানরা। ইব্রাহীম জারদান ৪১ বলে ৪২ এবং নাজিবুল্লাহ জারদান ১৭ বলে ৪৩ রানে অপরাজিত থাকেন।

নিচু বাউন্সের উইকেটে বাংলাদেশি স্পিনারদের সামাল দিতে বেগ পেতে হয়েছে আফগানদেরও। রান তাড়ার শুরু থেকেই আফগানদের চেপে ধরে বাংলাদেশ। আঁটসাঁট বোলিংয়ে আফগানদের রান তোলার গতি রোধ করার চেষ্টা করছে টাইগার বোলাররা। সাকিব ব্যাট হাতে বেশি কিছু করতে না পারলেও বল হাতে নিজের মান রেখেছেন । মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ক্যাচ না ফেললে ইনিংসের তৃতীয় ওভারেই রহমানউল্লাহ গুরবাজের উইকেট তুলে নিতে পারতেন সাকিব আল হাসান। লং অনে থাকা রিয়াদ সেই ক্যাচ সামনে ঝাঁপিয়ে পড়েও তালুতে জমাতে পারেননি। তবে সাকিব তাতে দমে যাননি। নিজের পরের ওভারেই গুরবাজের উইকেট শিকার করেছেন। তার নিচু হয়ে যাওয়া বল সামনে এগিয়ে খেলতে গিয়ে স্টাম্পড হয়ে ফেরেন গুরবাজ ।
দ্বিতীয় উইকেটে ওপেনার হজরতউল্লাহ জাজাই এবং ইব্রাহিম জাদরানের ৩১ বলে ৩০ রানের জুটিতে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিজেদের হাতে নেওয়ার চেষ্টা করে আফগানিস্তান। তবে ইনিংসের দশম ওভারে জাজাইকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলে সাজঘরের পথ চেনান ব্যাট হাতে আলো ছড়ানো মোসাদ্দেক।

ব্যাটিংয়ে আফগান স্পিনার মুজিব উর রহমানের ঘূর্ণিতে প্রথমেই টাইগারদের দুই ওপেনার ফিরেন সাজঘরে। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে ব্যক্তিগত ৬ রানে ব্যাট করতে থাকা নাঈম শেখকে সরাসরি বোল্ড করেন মুজিব। এরপর চতুর্থ ওভারে স্পেলের দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলে এনামুল হক বিজয়কে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন তিনি। এনামুল হক বিজয়কে প্রথমে আম্পায়ার আউট না দিলেও রিভিউ নিয়ে দ্বিতীয় সাফল্য পেয়েছে আফগানরা। আউট হওয়ার আগে ১৪ বলে মাত্র ৫ রান করেছেন এই টাইগার ওপেনার। পরপর দুই উইকেট হারানো চাপ কমাতে আগ্রাসী ব্যাটিং শুরু করে সাকিব। পঞ্চম ওভারে নাভিন উল হককে পরপর দুই বাউন্ডারি হাঁকিয়ে রানের চাকা সচল করেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। আশার আলো দেখিয়ে তিনিও উইকেটে দাড়াতে পারেননি। পরের ওভারেই ব্যক্তিগত ১১ রানে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেছেন। মুজিব উর রহমান তার তৃতীয় ওভারের দ্বিতীয় বলে সরাসরি বোল্ড করে রুখে দেন সাকিবকে। স্কোরবোর্ডে ৪ রান যোগ করতেই সাজঘরে ফেরার মিছিলে নাম লেখান মুশফিকুর রহিম। এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে মুশফিককে ফিরিয়ে ম্যাচে প্রথম উইকেট পান রশিদ খান। সপ্তম ওভারের দ্বিতীয় বলে মুশফিককে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন রশিদ খান।

এবারেও রিভিউ নিয়ে চতুর্থ সাফল্য পায় আফগানরা। এরপর আফিফ হোসেনকে নিয়ে ২৫ রানের পার্টনারশিপ গড়েন সাইলেন্ট কিলার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ১১তম ওভারে আফিফকেও সাজঘরে ফেরান রশিদ খান। আউট হওয়ার আগে ১৫ বলে ১২ রান করেছেন তিনি। এরপর মোসাদ্দেককে নিয়ে বড় সংগ্রহের পথে যাত্রা শুরু করেন রিয়াদ। যাত্রার প্রথম দিকে মোসাদ্দেকের আউট হওয়ার সম্ভাবনা জাগলেও শেষ পর্যন্ত ছয় হয়েছে সেটি। ক্যাচ নিয়ে ফিল্ডারের পা বাউন্ডারির সঙ্গে লেগে গিয়েছে। তবে ৩৬ রানের পার্টনারশিপ ভাঙ্গেন রিয়াদ নিজেই। রশিদ খানের শেষ ওভারে ওভার বাউন্ডারি হাঁকাতে গিয়ে ইব্রাহিম জাদরানের হাতে তালুবন্দি হন রিয়াদ। মাত্র ১ চারের সাহায্যে ২৭ বলে ২৫ রান করেছেন টাইগারদের সাবেক অধিনায়ক। এরপর মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও শেখ মাহেদি হাসান দলীয় শতরান পূর্ণ করেন। সপ্তম উইকেটের জুঁটিতে স্কোরবোর্ডে ৩৫ রান যোগ করেন সৈকত ও মাহেদী। ইনিংসের শেষ ওভারের পঞ্চম বলে রান আউট হন শেখ মাহেদি হাসান। প্রথম হাফসেঞ্চুরি পূরনের ইচ্ছা থাকলেও শেষ বলে কোনো রান সংগ্রহ করতে পারেনি মোসাদ্দেক।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ: ২০ ওভারে ১২৭/৭ (নাঈম ৬, এনামুল ৫, সাকিব ১১, মুশফিক ১, আফিফ ১২, মাহমুদউল্লাহ ২৫, মোসাদ্দেক ৪৮*, মেহেদি ১৪, সাইফ ০*; ফারুকি ৪-০-২৫-০, মুজিব ৪-০-১৬-৩, নাভিন ৪-০-৩১-০, রশিদ ৪-০-২২-৩, নবি ৩-০-২৩-০, ওমরজাই ১-০-৭-০)।

আফগানিস্তান: ১৮.৩ ওভারে ১৩১/৩ (জাজাই ২৩, গুরবাজ ১১, ইব্রাহিম ৪২*, নবি ৮, নাজিবউল্লাহ ৪৩*; সাকিব ৪-০-১৩-১, মুস্তাফিজ ৩-০-৩০-০, মেহেদি ৪-০-২৬-০, তাসকিন ৩-০-২২-০, মোসাদ্দেক ২.৩-০-১২-১, সাইফ ২-০-২৭-১)

ফল: আফগানিস্তান ৭ উইকেটে জয়ী

ম‍্যান অব দা ম‍্যাচ: মুজিব উর রহমান

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!