শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বালাগঞ্জ-ওসমানীনগরকে নিয়ে সংসদীয় আসন গঠন করার দাবি উত্থাপন করা উচিত: অ্যাডভোকেট দিপন



গোলাম সোবহান চৌধুরী দিপন

বালাগঞ্জ-ওসমানীনগরকে নিয়ে একত্রে একটি সংসদীয় আসন গঠন করার দাবি উত্থাপন করা উচিত বললেন সুপ্রীম কোর্ট আইনজীবী এবং সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট গোলাম সোবহান চৌধুরী দিপন।  সম্প্রতি স্যোশ্যাল মিডিয়ায় তার এই দাবি সংক্রান্ত একটি পোস্ট প্রকাশ পেয়েছে যা এলাকাবাসী বেশ ইতিবাচক হিসেবে নিয়েছেন। বিভিন্নজন পোস্টে কমেন্ট করে তার সাথে একাত্মতা পোষণ করেছেন এবং এটা তাদের প্রাণের দাবি বলে জানান দিয়েছেন।

পোস্টে তিনি বলেছেন, বালাগঞ্জ-ওসমানীনগরের মানুষজনের দাবি উত্থাপন করা উচিত যে, একত্রে একটা সংসদীয় আসন গঠন করার। বৃহত্তর বালাগঞ্জ নিয়ে একটা সংসদীয় আসন হওয়া উচিত। ব্যাবসা-বাণিজ্যে উন্নতি না করলে এ অঞ্চল পিছিয়ে পড়বে। গ্রাম গুলোতে সামর্থবান মানুষজন বড় কৃষি খামার গড়ে তুলতে পারেন। দেশের অন্যান্য জায়গায় গড়ে উঠছে। কেবল বিদেশী টাকায় সার্বিক উন্নতি হবে না। কুশিয়ারা নদীতে ব্রীজ হলে দক্ষিণ দিকে মৌলভিবাজারের সাথে যোগাযোগ অপেন হবে। এটা বেশ ভাল ব্যাপার, তাতে বালাগঞ্জ বাজারের বাণিজ্যিক ও অনান্য গুরুত্ব বাড়বে।

কুশিয়ারার তীর-কে কেন্দ্র করে পর্যটন শিল্পের ভাল সম্ভাবনার কথাও তিনি উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, কুশিয়ারার তীর-কে কেন্দ্র করে বালাগঞ্জে পর্যটন শিল্পের ভাল সম্ভাবনা আছে। কুশিয়ারা হয়ে হাকালুকি নৌ-ট্যুরিজম আকর্ষণীয় হবে। মানুষ মাছে-ভাতে-ব্যাবহারে আথিতিয়তা পেলে এই এলাকার চেহারা বদলে যাবে।

তিনি আরো বলেন, শেরপুরের অন্য পাশে শ্রীহট্র ইন্ডাস্ট্রিয়াল জোন হয়েছে। এপারে প্রবাসীদের উদ্যোগে একটা “ইন্ডাস্ট্রিয়াল জোন” হতে পারে। এখানে কারিগরি ইনস্টিটিউট, প্রযুক্তিবিদ্যার উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হতে পারে। সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জে হতে পারলে এখানেও সম্ভব। ছেলে-মেয়েরা দক্ষ জনশক্তি হয়ে উঠবে। দেশের বাইরে গেলে দক্ষ সম্পদ হিসেবেই যাবে।

এছাড়া কৃষিসহ এলাকার ভবিষ্যত নির্ধারণে সৃজনশীল উদ্যোগের কথাও তিনি তার পোস্টে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, কৃষিতে আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার নিশ্চিত হলে উৎপাদন বাড়বে। সেজন্য, কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের কার্যক্রম গতিবৃদ্ধি করবে যদি এখানে তারা “বড় প্রকল্প” নিয়ে হাজির থাকে। কৃষির জন্য সকল সরকারী সুযোগ এখানে নিশ্চিত করতে পারলে কৃষিতে বড় ধরনের পরিবর্তন আসবে। আমাদের ভাবতে হবে। এই অঞ্চলের ভবিষ্যত নির্ধারণে সৃজনশীল উদ্যোগ নিতে হবে। উন্নয়ন ভাবনায় একটা বড় ধরনের নীতিগত পরিবর্তন দরকার। সাহসী পদক্ষেপ সফলতা এনে দেবে।

উল্লেখ্য, অ্যাডভোকেট গোলাম সোবহান চৌধুরী দিপনের বসবাস সিলেট নগরীর টিলাগড়ের শাপলাবাগ এলাকায় হলেও তার আদি নিবাস ওসমানীনগরের বেরাখাল গ্রামে। তার বাবা প্রখ্যাত বাম রাজনীতিবিদ ও মুক্তিযোদ্ধা মরহুম আব্দুস সাত্তার চৌধুরী। এবারের সংসদ নির্বাচনে গোলাম সোবহান চৌধুরী দিপন নমিনেশন চাইবেন এমন গুঞ্জন ও ছিল বেশ।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন