রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Sex Cams

পাঠ প্রতিক্রিয়া: অনুভবে অনুভূতি।। ফজির আহমেদ (আশরাফ)



বালাগঞ্জ প্রতিদিন পত্রিকায় আমার বন্ধু- ভাই -সহপাঠী-লেখক আব্দুর রশীদ লুলু ‘অনুভবে অনুভূতি’ শিরোনামে আমাকে নিয়ে ২০ জুন ২০২৪ একটা বিশেষ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছেন। তার আত্মউপলব্ধিতে আমার কিছু গুণ, মানবিক মর্যাদা- মানবিকতার বর্ণনা ও প্রশংসা করেছেন। আমি কিন্তু সেই মর্যাদা-প্রশংসা-মূল্যায়ন পাওয়ার যোগ্য নই।

আব্দুর রশীদ লুলু যেভাবে আমাকে মর্যাদার উচ্চ আসনে বসিয়েছে। ভেবে পাচ্ছিনা তার এই উপলব্ধি-অনুভূতির কৃতজ্ঞতা কিভাবে জানাবো, সেই ভাষা,শক্তি, লিখনি-জ্ঞান আমার নেই । কবির ভাষায় বলতে হয় – আজি যত তারা তব আকাশে/ সবে মোর প্রাণ ভরি প্রকাশে / নিখিলও তোমার এসেছে ছুটিয়া/ মোর মাঝে আজি পড়েছে টুটিয়া হে/ দিকে-দিগন্তে যত আনন্দ লভিয়াছে/ আছে এক গভীরও গন্ধ, নিখিলও নি:শ্বাসে আজি এ বক্ষে বাঁসরির সুরে বিলাসে।

আব্দুর রশীদ লুলুর অনেক লম্বা প্রবন্ধ। এতে আমায় কুড়ে কুড়ে জীবন বৃত্তান্ত বর্ণনা করা হয়েছে। কৃতজ্ঞচিত্তে মনের গভীরের অন্ত:স্থল থেকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। আমরা মানুষ হিসেবে মানুষের পাশে থেকে কি করছি? যেখানে মানবতা-মানবিকতা নীরবে-নিভৃতে আর্তনাদ করছে। বিশ্বজুড়ে অন্যায়- অত্যাচার, জুলুম, হত্যাযুদ্ধ আমাদের বারবার প্রশ্ন করছে- মানুষ হয়ে মানুষের সাথে কিভাবে আমরা দুর্ব্যবহার করছি, কিভাবে একে অপরের রক্ত শোষণ করছি। কোথায় আমাদের মানবতা-মনুষ্যত্ব?

আব্দুর রশীদ লুলুর অনেক উৎসাহ-উদ্দীপনামূলক বর্ণনা পৃথিবীর অনেক অধিকার বঞ্চিত অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর উপদেশ বহন করে। কিন্তু আমরা তো বহু দূরে দাঁড়িয়ে রয়েছি। সৃষ্টি রয়েছে আমাদের পানে চেয়ে, আর আমরা চোখ খুঁজে স্রষ্টার খোঁজে আমাদের পিছে দৌঁড়াচ্ছি। সমস্ত পৃথিবীর বৈষম্য, ধনী-গরিবের সম্পদের পার্থক্য পর্যালোচনা করলে আকাশ-পাতাল তফাৎ। যেখানে রবি-শশী- তারা-প্রভাত-সন্ধ্যা, এই পৃথিবীর যা সম্পদ- ফলে ভরা রস, ফুলে ভরা সুগন্ধ, সুধাসম জল, পাখির কণ্ঠে গান, সকলের এতে সমঅধিকার । কিন্তু কোথায় তা? অসত্য- অন্যায়-অবিচারে-ডুবে রয়েছি আমরা। যেখানে উচিত ছিল, আমরা মানবিকতার সাহায্য- সহযোগিতা নিয়ে করুণার ধারায়, হৃদয় দিয়ে ভাইকে দেখে ভাইয়ের পাশে সত্য-নিষ্ঠা বাস্তবতা দিয়ে দাড়ানো, সেখানে কোথায় সেই দায়িত্ববোধ – কর্তব্যবোধ, সহনশীলতা বজায় রাখছি?

‘অনুভবে অনুভূতি’তে বুঝতে পারলাম, বন্ধুত্ব নিয়ে আব্দুর রশীদ লুলু কিছুটা ব্যতীত। হয়তো বন্ধুত্ব নিয়ে লেখকের ধারণার কিছুটা ঘাটতি আছে। সাগরে অনেক ঢেউ উঠে কিন্তু সবগুলো কিনারায় গিয়ে পৌঁছাতে পারে না। ঠিক তেমনি আমাদের জীবনের অনেক বন্ধু-বান্ধব সকলেই যে সকলের আজীবন একান্ত আপন হয়ে থাকবে তেমনটাও নয়। আমার ব্যক্তিগত প্রার্থনায় সকলের মঙ্গঁল কামনা করি। আমার জীর্ণ-দিনতায়- অবহেলায় আঘাত পেলে, আমি আন্তরিকভাবে ব্যতীত থাকবো।

আব্দুর রশীদ লুলু’র চিন্তা-চেতনায়, কামনা-বাসনায় আমার সর্বাঙ্গিক সহযোগিতা থাকবে। তার উজ্জ্বল জীবন প্রার্থনা ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে কবির ভাষায় বলি, “সীমার মাঝে অসীম তুমি, বাজাও আপন সুর……।”

◻লেখক: আমেরিকা প্রবাসী

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!