মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

‘স্কুলের হোমওয়ার্ক না করায়’ ফ্রান্সে নয় বছর বয়সী শিশুকে পিটিয়ে হত্যা



‘স্কুলের হোমওয়ার্ক না করায়’ ইস্টার্ন ফ্রান্সের মুলহাউস সিটিতে একটি পরিবারের সদস্যরা নয় বছর বয়সী শিশুকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। এ ঘটনা যখন ঘটে তখন ছেলেটির বড় ভাই, বোন ও এক সৎ বোন উপস্থিত ছিল। শিশুটির মা ঘটনাস্থলে উপস্থিত না থাকলেও ছেলেকে বেধড়ক মার দেওয়ার বিষয়টি তার অজানা ছিল না। ফলে ভাই–বোনদের সঙ্গে পুলিশ তাকেও গ্রেফতার করেছে। সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, এই ঘটনা এমন এক সময় ঘটল যখন স্কুলে সহিংসতা মুক্তভাবে পাঠদান নিশ্চিত ও পরিবারে শিশুদের শারীরিক ও মানসিকভাবে নিপীড়ন বন্ধে ফ্রান্সের সংসদ আইন পাসের কথা ভাবছে।

গত রবিবার (১৮ নভেম্বর) ভুক্তভোগী শিশুটি মৃত্যুবরণ করে। প্রতিবেশীরা তার পরিবারকে সহানুভূতিও জানান। কিন্তু সমস্যা দেখা দেয় ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনে। কারণ ছেলেটির বাবা-মা ছেলের মৃত্যুর বিষয়ে যা জানিয়েছিল, তার সঙ্গে ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনের মিল ছিল না। শেষ পর্যন্ত পুলিশের তদন্তে বের হয়ে আসে, তাকে পরিবারের সদস্যরাই পিটিয়ে মেরে ফেলেছে হোমওয়ার্ক না করায়।

সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক জানিয়েছেন, শিশুটির হার্ট অ্যাটাক হলেও সে আসলে মারা গেছে মারের কারণে। তার শরীরে, বিশেষ করে পায়ে কালশিটে পড়ে গিয়েছিল। পুলিশের একজন কর্মকর্তা বলেছেন, তাকে ভোতা বস্তু দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। ফরাসি সংবাদ মাধ্যমগুলোর ভাষ্য, তার মা ব্যবসার কাজে বাইরে থাকলেও মারধরের বিষয়টি জানত এবং হোমওয়ার্ক না করায় মার দেওয়া সমর্থন করত।

যদিও সংশ্লিষ্টদের ধারণা, তার ১৯ বছর বয়সী ভাই-ই এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে, পুলিশ পরিবারের চার সদস্যকেই গ্রেফতার করেছে বৃহস্পতিবার।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!