মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বালাগঞ্জে মাদ্রাসা ছাত্রী ধর্ষণকারীদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত



বালাগঞ্জে মাদ্রাসা ছাত্রী ধর্ষণকারীদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২৫ নভেম্বর (রোববার) বিকেলে উপজেলার স্থানীয় মাদ্রাসাবাজারে গহরপুর যুবসমাজের উদ্যোগে এ মানববন্ধনে আসামিদের ফাঁসির দাবিতে এলাকার সর্বস্থরের বিপুল সংখ্যক মানুষ অংশ গ্রহণ করেন।

প্রায় ১ ঘণ্টাব্যাপী বিশাল মানববন্ধনের সমাপনী বক্তৃতায় জামিয়া ইসলামিয়া হুসাইনিয়া গহরপুর মাদ্রাসার মুহতামিম হাফিজ মাওলানা মুসলেহ উদ্দিন রাজু বলেন, গহরপুরের পবিত্র মাটিতে ধর্ষণের মতো জঘন্যতম ঘটনা যারা ঘটিয়েছে সে সকল অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার না হওয়া পর্যন্ত এলাকার মানুষ শান্তি পাবেন না। তিনি ধর্ষণের ঘটনার সাথে জড়িত সকল অপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তি প্রদানের দাবি জনান।

উক্ত মানববন্ধনে দেওয়ান আব্দুর রহিম হাইস্কুল এন্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. খলিলুর রহমান, কলেজ গর্ভনিং বডির সদস্য এনায়েতুর রহমান খান রাজু, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আলহাজ্ব এমএ মালেক, ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক তোফায়েল আহমদ, গহরপুর জামিয়ার মুহাদ্দিস মাওলানা আব্দুল কাইয়ুমসহ বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার শিক্ষক-ছাত্র, স্থানীয় শ্রমিক সংগঠনের চালক, নেতৃবৃন্দ এবং এলাকাবাসী উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বালাগঞ্জ উপজেলার দেওয়ান বাজার ইউনিয়নের খায়রুন্নেছা দারুচ্ছুন্নাহ্ ইসলামিয়া আরাবিয়া মহিলা মাদ্রাসার ৭শ্রেণির এক ছাত্রী গণধর্ষণের শিকার হয়। এ বিষয়ে শুক্রবার ভিকটিমের পিতা বাদী হয়ে বালাগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং -৮(২৩/১১/২০১৮।

গত শনিবার এ ঘটনায় অভিযুক্ত শিওর খাল গ্রামের আবদুল করিম তালুকদারের ছেলে আব্দুল আহাদ ও স্থানীয় ইউপি সদস্য আইয়ুব উল্লাহর ছেলে একই গ্রামের আজই মিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত দু’জন ছাড়াও অজ্ঞাত আরো ৪জনকে আসামী করা হয়। এ ব্যাপারে বালাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ গাজী মো. আতাউর রহমান জানান, ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত মূল ২জন আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আসল তথ্য বের করার চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!