বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সমাহিত বালাগঞ্জের বীর মুক্তিযোদ্ধা রাখাল চন্দ্র দাস



বালাগঞ্জ উপজেলার চানপুর গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা ক্যান্সার আক্রান্ত রাখাল চন্দ্র দাস (৬৮) আর নেই। তিনি শনিবার (১৮মে) দুপুর দেড়টার দিকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। মৃত্যুকালে তিনি মা, স্ত্রী ও এক মেয়ে, ভাই-বোনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। শনিবার (১৮মে) রাত পৌনে ৮টায় বালাগঞ্জ উপজেলা সদরের চানপুর গ্রামে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় গার্ড অব অনার প্রদান শেষে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে।

প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা রাখাল চন্দ্র দাস

গার্ড অব অনার প্রদানকালে বালাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নাজমুস সাকিব ও ওসমানীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আনিছুর রহমান, বালাগঞ্জ থানার এসআই অপুদাস গুপ্ত উপস্থিত ছিলেন। বালাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজমুস সাকিব তাঁর ব্যক্তিগত তহবিল থেকে প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা রাখাল চন্দ্র দাসের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন করতে তাঁর পরিবারকে ১০হাজার টাকা অনুদান প্রদান করেছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বীর মুক্তিযোদ্ধা রাখাল চন্দ্র দাস ওসমানীনগর উপজেলার গোয়ালাবাজারে বসবাস করতেন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ক্যান্সার রোগে ভোগছিলেন। সর্বশেষ ১৫মে রাতে তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ওসমানী নগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আনিছুর রহমান তাঁকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান। সেখানে চিকিৎসাধিন অবস্থায় গতকাল শনিবার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি বালাগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা করুণাময় দাস ভৈরবের ছোট ভাই।

এদিকে শনিবার রাত পৌনে ৮টায় বালাগঞ্জ উপজেলা সদরের চানপুর গ্রামে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় গার্ড অব অনার প্রদান শেষে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। রাষ্ট্রীয় সম্মান প্রদর্শন শেষে ১মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। পরে প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা রাখাল চন্দ্র দাসের বড়ভাই মুক্তিযোদ্ধা করুনাময় দাস ভৈরবের কাছে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্নের জন্য বালাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নাজমুস সাকিব তাঁর ব্যক্তিগত তহবিলের ১০ হাজার টাকা অনুদান প্রদান করেন। এ সময় বালাগঞ্জ উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা গৌরাঙ্গ চন্দ্র মন্ডল, বালাগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি রজত চন্দ্র দাস ভুলন, সমাজকর্মী রবীন্দ্র কুমার দাস, ব্যাংক কর্মকর্তা নিবারণ দাস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বালাগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন ও ওসমানীনগর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধার কফিনে শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রদান করা হয়।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন