বৃহস্পতিবার, ৯ ডিসেম্বর ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

দক্ষিণ সুরমায় দুষ্কৃতকারীরা মরহুম এমপি সামাদ চৌধুরীর নামফলক তুলে নিয়েছে



দক্ষিণ সুরমা উপজেলার মোগলাবাজার থানাধীন রাউতকান্দি/সিকন্দরপুর গ্রামের হাজারীবাড়ী হয়ে ছানিগাঁও রাস্তার উন্নয়ন কাজ শেষে করেন সিলেট-৩ আসনের এমপি মরহুম মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী। কাজ শেষে আনুষ্ঠানি উদ্বোধনের জন্য এমপির নামে যথারীতি নামফলক স্থাপন করা হয়।

এই নামফলক উম্মুচনের কথা ছিলো এমপি মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর। কিন্তু উদ্বোধনের আগেই মহান রাব্বুল আলামীনে ডাকে সাড়া দিয়ে চির বিদায় নিলেন সেই মানুষটি। মরহুম মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর শোকের রেশ কাটতে না কাটতে নামকফল তোলে নেয়ারমত ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটালো সিকন্দরপুরে মিজান, রাজু, সাহেদ ও তামিম গং সন্ত্রাসীরা।

জানা যায়- গত ১১ মার্চ এম. পি মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর ইন্তেকালের সংবাদে সারাদেশ যখন শোকে বিভোর, ঠিক সেই সময় সিকন্দরপুর গ্রামে দিন দুপুরে এম.পি’র নামের নামফলকটি সন্ত্রাসী কায়দায় তুলে নিয়ে যায় মিজান, রাজু, সাহেদ, তামীম গংরা।
প্রতক্ষদর্শীরা বলেন- তাদেরকে এমন খারাপ কাজ না করার জন্য অনুরোধ করলে তারা তাদেরকে হুমকি প্রদান করে এবং মরহুম এমপিকে কঠোর ভাষায় গালাগালি করে তারা।

লোক মুখে শোনা যায়- মিজান কিছুদিন আগে কুয়েতে কফিলের কোটি কোটি টাকা আত্মসাত করে কারাগারে ছিল, জামিন নিয়ে কোন রকম অউট পাস টিকেট করে চুরি করে পালিয়ে দেশে আসে। কিছু দিন যাবত সেই মিজান জান বাঁচানোর জন্য আওয়ামীলীগের ভুয়া পরিচয় দিয়ে সমাজে অবৈধ টাকা পয়সা কিছু খরচ করে আওয়ামীলীগের একটা কমিটিতে তার নাম লেখানোর চেষ্টা করে ছিলো কিন্তু আওয়ামীলীগের তৃণমূলের নেতাকর্মিরা তার খারাপ মনোভাব ও কর্যক্রম দেখে বার বার তাকে প্রতিহত করে আসছিলেন। ফলে সে ওয়ার্ড, ইউনিয়ন, উপজেলার কোনো কমিটিতে স্থান পায়নি।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!