শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৮ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ওমিক্রন: ২২ দেশে শনাক্ত, ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ৭০ দেশ



এ পর্যন্ত বিশ্বের ২২ দেশে শনাক্ত হয়েছে কোভিডের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন। মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএনের খবরে জানানো হয়েছে, সর্বশেষ সৌদি আরবেও একজনের ওমিক্রন শনাক্ত হয়। সৌদি প্রেস এজেন্সির এক রিপোর্ট বলছে, আক্রান্ত ওই ব্যাক্তি সম্প্রতি উত্তর আফ্রিকার একটি দেশ সফর করেছিলেন। বর্তমানে ওই ব্যাক্তি ও তার সংস্পর্শে আসাদের কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। কোভিডের এই ভ্যারিয়েন্টটির উৎপত্তিস্থল ধারণা করা হচ্ছে আফ্রিকার দক্ষিণাঞ্চলীয় দেশ বতসোয়ানা। এখান থেকেই প্রতিবেশী দেশগুলোতে ছড়িয়ে পড়ে ভ্যারিয়েন্টটি। তবে এটি শনাক্ত হওয়ার আগেই বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এখন পর্যন্ত বিশ্বের যেসব দেশে এই ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত হয়েছে সেগুলো হচ্ছে- দক্ষিণ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া, অস্ট্রিয়া, সৌদি আরব, বেলজিয়াম, কানাডা, চেক প্রজাতন্ত্র, ডেনমার্ক, ফ্রান্স, জার্মানি, হংকং, ইসরায়েল, ইতালি, জাপান, নেদারল্যান্ডস, পর্তুগাল, স্পেন, সুইডেন, বৃটেন ও নাইজেরিয়া।

করোনার টিকা প্রস্তুতকারক কোম্পানি বায়োএনটেকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা উগুর সাহিন বলেছেন, টিকা নেয়া ব্যক্তিদের ওমিক্রন হয়তো আক্রান্ত করতে পারে। তবে ভয়াবহ অসুস্থতা সৃষ্টি করবে না বলে তারা নিরাপদেই থাকবেন। অন্যদিকে মার্ক এর মুখে খাওয়ার পিল নিয়ে গবেষণা হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য বিষয়ক উপদেষ্টাদের একটি প্যানেল সংকীর্ণভাবে এই পিলকে সমর্থন দিয়েছেন। এ সপ্তাহের শেষের দিকে এই পিল অনুমোদন পেতে পারে। গত সপ্তাহে দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম শনাক্ত হয় ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট। এর ক্ষতিকর দিক এবং সংক্রমণের মাত্রা জানতে প্রতিযোগিতা করছেন বিজ্ঞানীরা।ি

এদিকে, সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, ওমিক্রনের বিস্তার ঠেকাতে কমপক্ষে ৭০টি দেশ ও অঞ্চল আফ্রিকার বেশ কয়েকটি দেশের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। করোনার নতুন ধরন নিয়ে উদ্বেগ থেকে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় রয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউটিও) করোনার নতুন এ ধরনকে ‘উদ্বেগজনক’ বলে আখ্যায়িত করেছে। তবে সংস্থাটি নতুন ভ্যারিয়েন্টের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আফ্রিকা বিষয়ক কর্মকর্তা ড. নিকসি গুমেডে-মোলেতসি বলেন, সীমান্ত বন্ধ করে দেয়া সমস্যার সমাধান নয়। অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রের মহামারি বিষয়ক শীর্ষ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউচি জনগণের প্রতি টিকা নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। যারা টিকা নিয়েছেন তাদেরকে বুস্টার ডোজ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। পাশাপাশি মুখে মাস্ক পরায় উৎসাহী করেছেন। জনার্কীর্ণ স্থান এবং কম বাতাস চলাচল করে এমন স্থান এড়িয়ে চলতে বলেছেন।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

error: Content is protected !!