শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইতালি প্রবাসী ও তাঁর পরিবারসহ আগুনে পুড়ে নিহত প্রায় অর্ধশত



মারা যাওয়া মোবারকের পরিবারের সদস্যরা (বৃত্ত চিহ্নিত)। ছবি: সংগৃহীত

ইতালি প্রবাসী প্রবাসী সৈয়দ মোবারক হোসেন কাউসার (৪৮) মাস খানেক আগে স্থায়ীভাবে থাকার সুযোগ পেয়েছেন। স্ত্রী ও সন্তানদের সেখানে নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। ভিসাও হয়ে গিয়েছিল সবার। কিন্তু ইতালি আর যাওয়া হলো না তাদের। বেইলি রোডের আগুনে পুড়ে স্ত্রী-সন্তানসহ মারা গেছেন মোবারক।

মোবারকের চাচাতো ভাই ফয়সাল সংবাদমাধ্যমে জানান, পরিবারের সবাইকে নিয়ে ডিনার করতে গিয়েছিলেন মোবারক। সঙ্গে ছিল স্ত্রী স্বপ্না আক্তার (৪০), দুই মেয়ে ফাতেমা তুজ জোহরা কাশফিয়া (১৯) ও আমেনা আক্তার নূর (১৩) এবং একমাত্র ছেলে সৈয়দ আব্দুল্লাহ (৮)। আগুনে পুড়ে সবাই মারা গেছেন।

বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারী) রাতের দিকে ওই ভবনের দ্বিতীয় তলায় ‘কাচ্চি ভাই’ নামে একটি রেস্তোরাঁয় আগুন লাগে। ফায়ার সার্ভিসের ১৩টি ইউনিটের চেষ্টায় রাত ১১টা ৫০ মিনিটের দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। এ আগুনের ঘটনায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে মারা গেছেন ১০ জন। এ ছাড়া ভর্তি রয়েছে আরও অনেকে। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজে আরও ৩৩ জন মারা গেছেন। তাদের মধ্যে কয়জন নারী, পুরুষ কিংবা শিশু তা এখনও জানার চেষ্টা চলছে। রাতে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন এসব তথ্য জানিয়েছেন।

জানাগেছে, নিহত সৈয়দ মোবারক হোসেন কাউসারদের গ্রামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার শাহবাজপুরে।

শেয়ার করুন:

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন